Trending Now:

Saturday, December 1, 2018

Bangladesh Election 2018 Date - বাংলাদেশ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ ২০১৮


Bangladesh Election 2018 Date - Bangladesh National Election 2018 Date (বাংলাদেশ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ ২০১৮)! Hello Dear, Welcome to Bangladesh General Election 2018 Date Content. In Bangladesh, the National Election 2018 will be held on 30th December, 2018 to select members of the Jatiya Sangsad.

At present, there are two big political party available in Bangladesh and their name is Grand Alliance and Jatiya Oikya Front, who are fighting go to the Jatiya Sangsad Power. If you are a Bangladeshi people and want to know about the Bangladesh Election Official Date 2018? This is the right place for you. Because, in this content we will try to provide some information about the Bangladesh Eleventh Parliament Election 2018 Date. So, staying with us and follow the below content.



Bangladesh General Election 2018 Date:

A few days ago, the election commission of Bangladesh, abbreviated EC officially announces the Bangladesh Eleventh Parliament Election Date 2018. The BD Eleventh Parliamentary Election, 2018 will be held on 30th December, 2018 in Bangladesh (বাংলাদেশ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, ২০১৮ অনুষ্ঠিত হবে ৩০ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ তারিখে).

Bangladesh General Election 2018 Coalitions and Alliances:

There are two big political party available in Bangladesh and their name is Grand Alliance and Jatiya Oikya Front, who are fighting go to the Jatiya Sangsad Power.

Bangladesh General Election - Grand Alliance Info:

  • Coalition: Grand Alliance
  • Leader: Sheikh Hasina (Awami League).
  • Members: Bangladesh Awami League, Jatiya Party (Ershad), Jatiya Samajtantrik Dal, Workers Party of Bangladesh, Jatiya Party (Manju), Bangladesh Tarikat Federation, Bangladesh Nationalist Front, Bikalpa Dhara Bangladesh.
  • Seats won in 2014: 250 (Grand Alliance) and 34 (United National Alliance).


Bangladesh General Election - Jatiya Oikya Front Info:

  • Coalition: Jatiya Oikya Front
  • Leader: Kamal Hossain (Gano Forum)
  • Members: Bangladesh Nationalist Party, Jatiya Oikya Prokriya, Jatiya Samajtantrik Dal-JSD, Nagorik Oikya, Krishak Sramik Janata League, Liberal Democratic Party, Kalyan Party Bangladesh, Jatiya Party Bangladesh, Khelafat Majlish, Jatiya Ganatantrik Party, Bangladesh Muslim League, Jamiat-e-Ulama-e-Islam Bangladesh.
  • Seats won in 2014: Did Not Participate.

Share:

Wednesday, November 28, 2018

৩০ ডিসেম্বরের ম্যাচে ১২ জনের বিপক্ষে লড়বে বস মাশরাফি বিন মুর্তজা (ম্যাশ)

৩০ ডিসেম্বরের ম্যাচে মাশরাফির প্রতিদ্বন্দ্বী এক ডজন! আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজার সঙ্গে লড়তে চান বিএনপির তিনজনসহ মোট ১২ জন। মাশরাফিসহ সবাই গতকাল বুধবার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।
বিএনপির তিনজন হলেন সাবেক সাংসদ মুফতি শহিদুল ইসলাম, ২০-দলীয় জোটের শরিক ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) চেয়ারম্যান এ জেড এম ফরিদুজ্জামান ও মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব শরীফ কাশাফুদ্দোজা।

মুফতি শহীদুল ইসলাম ২০০১ সালের নির্বাচনে নড়াইল-২ আসনে চারদলীয় জোটের প্রার্থী হিসেবে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। শেখ হাসিনা ৪ হাজার ২৩৩ ভোটে বিজয়ী হন। এরপর তিনি আসনটি ছেড়ে দিলে উপনির্বাচনে শহিদুল ইসলাম সাংসদ নির্বাচিত হন। ২০০৯ সালে তিনি বাংলাদেশ গণসেবা আন্দোলন নামে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেন। এ দলের কেন্দ্রীয় মহাসচিব আবদুর রহমান বলেছেন, শহিদুল বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন।
বিএনপির মনোনয়ন পাওয়া বাকি দুজনের মধ্যে এনপিপির চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামানের বাড়ি লোহাগড়া সদরের কুন্দশী মোড়ে। শরীফ কাশাফুদ্দোজা সাবেক সাংসদ শরীফ খসরুজ্জামানের ছেলে।
ফরিদুজ্জামান বলেন, ‘ধানের শীষের চূড়ান্ত প্রার্থী কে হবেন, তা কেন্দ্রীয় নেতারা ঠিক করবেন। মাশরাফি দেশের সম্পদ। আমি তাঁকে পছন্দ করি। সবাই পছন্দ করে। কিন্তু খেলার মাঠ আর ভোটের মাঠ এক নয়। এখানে ইলেকশন হবে নৌকার সঙ্গে ধানের শীষের। আমি মনে করি, যদি মানুষ ভোট দেওয়ার সুযোগ পায়, তবে ধানের শীষ ওই আসনে জিতবে ইনশা আল্লাহ।’
এ ছাড়া এই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সভাপতি ও বর্তমান সাংসদ শেখ হাফিজুর রহমান, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ফায়েকুজ্জামান ফিরোজ, জাসদের (রব) ফকির শওকত আলী, ইসলামী ঐক্যজোটের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এস এম নাসিরউদ্দিন, ইসলামী ঐক্যজোটের মাহবুবুর রহমান ও এনপিপির জেলা সভাপতি মনিরুল ইসলাম। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এই আসনে তিনজন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, তাঁরা হলেন মনির হোসাইন, শেখ জামাল উদ্দিন ও সাবেক সাংসদ শহিদুলের ছেলে তালহা ইসলাম।
মাশরাফির নির্বাচনী কর্মকাণ্ড পরিচালনার দায়িত্ব দলের
বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার নির্বাচনী কর্মকাণ্ড পরিচালনার সব দায়িত্ব নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগকে দিয়েছেন তাঁর বাবা গোলাম মুর্তজা স্বপন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় তিনি নেতাদের এ দায়িত্ব দেন।

মাশরাফির বাবা প্রথম আলোকে বলেন, মাশরাফির সব নির্বাচনী কর্মকাণ্ড জেলা আওয়ামী লীগের দিকনির্দেশনা অনুযায়ী হবে
সোর্সঃ প্রথম আলো 
Share: